ভুটান ভ্রমণ || Part 3 (পুনাখা)

 

ভুটান ভ্রমণ Part 1 এ আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি ভুটানের থিম্পু ভ্রমণের অভিজ্ঞতা এবং ভুটান ভ্রমণ Part 2 তে শেয়ার করেছি ভুটানের পারো ভ্রমণের অভিজ্ঞতা। এবার ভুটান ভ্রমণের শেষ পর্ব Part 3 তে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো ভুটানের পুনাখা ভ্রমণের অভিজ্ঞতা।

আমরা থিম্পু ও পারো ঘুরে দেখে চলে যাই থিম্পু শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে Dochula Pass এ। অন্ধকার ইতিহাসের সাক্ষ্যদানকারী স্থানকে যে অনুপ্রেরণার ও সুন্দর দর্শনীয় স্থানে রূপান্তর করা যায় সেটাই করে দেখিয়েছে ভুটান। Dochula Pass টি তৈরি করা হয় ১০৮ ভুটানি সৈনিকদের স্মরণের যারা ২০০৩ সালে মিলিটারি অপারেশনে মারা যান। এই স্থানটি শুধুমাত্র ঐতিহাসিক বা ধর্মীয় দিক থেকে গুরুত্ব পায় না বরং ভ্রমণ প্রেমীদের সৌন্দর্য অনুধাবন করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। Dochula Pass এর উচ্চতা প্রায় ১০ হাজার ফুট যেখান থেকে পাবেন 360° view ।

যদি আপনার ভাগ্য ভালো থাকে তাহলে আকাশ পরিষ্কার থাকলে দেখার সুযোগ পাবেন তুষার বোঝাই হিমালয় এর চুড়া।

আর Dochula Pass এ আপনার ভ্রমন যদি ১৩ ডিসেম্বর করে থাকেন তাহলে সাক্ষী হয়ে যেতে পারেন ভুটানিদের সুন্দর এবং জাঁকজমকপূর্ণ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। কারণ ১৩ ডিসেম্বর এখানে অনুষ্ঠিত হয় Druk Wangyal Lhakhang নামে বাৎসরিক অনুষ্ঠান। যদিও আমরা এ অনুষ্ঠান এর সাক্ষী হতে পারিনি কিন্তু আপনাদের যাতে মিস না হয় সে জন্য আপনাদেরকে জানিয়ে রাখা হল।

Dochula Pass ঘুরে আমরা চলে আসি পুনাখার মূল শহর থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে পুনাখা Dzong এ। Dzong টি po-chu(পো-চু) নদীর পাশেই তৈরি হয়েছে। পুনাখা Dzong এ আসলে প্রকৃতির স্বরূপ এর মাঝে মানুষের তৈরি সৌন্দর্য বর্ধক স্থাপনার অপূর্ব সংমিশ্রণ দেখে মুগ্ধ না হয়ে পারবেন না। নীল আকাশের নিচে সবুজ পাহাড়ের মাঝে, নিবিড় ভাবে বয়ে চলা নদীর পাশে মানুষের তৈরী দৃষ্টিনন্দন স্থাপনার মাঝে ক্ষণিকের জন্য হলেও আপনি সময় জ্ঞান থেকে হারিয়ে যাবেন। সময় থমকে যাবে আপনার কাছে।

পুনাখা Dzong ঘুরে চলে যাই পৃথিবীর দ্বিতীয় দীর্ঘ সাসপেনশন ব্রিজ এ। এই সাসপেনশন ব্রিজ এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৭০০ মিটার এই ব্রিজটি পুনাখা Dzong এর খুব কাছেই অবস্থিত।

পুনাখা Dzong ঘুরার পরে suspension bridge টি অবশ্যই ঘুরে যাবেন, কারণ এ ব্রিজের উপর দিয়ে এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত যাওয়ার ১০ মিনিটের হাঁটা হাঁটি খুবই মজার এবং আনন্দদায়ক

ভুটান ভ্রমণ Part 1

ভুটান ভ্রমণ Part 2